সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

গরমে স্বস্তি পেতে পান করুন ঠান্ডা ঠান্ডা জলজিরা

কেন পান করা উচিত জলজিরা?বদহজম, পেট ফোলা এবং খাবারে অরুচি সমস্যায় জিরা খুবই উপকারি। পাইলস সমস্যায় মিছরির সাথে জিরা মিশিয়ে খেলে উপকার পাওয়া যায়। নিয়মিত জিরা খে...

রোজার ইফতার শুরু হোক এক গ্লাস আমের জুসে

আর মাত্র কটা দিন পরেই শুরু হচ্ছে সিয়াম সাধনার মাস পবিত্র মাহে রমজান। আজকাল আবহাওয়ার অবস্থা দেখেই অনুমান করা যাচ্ছে এবার রোজায়ও আবহাওয়া থাকবে উষ্ণ।...

কাঁচা আমের জুস

এই গরমে কি করে যে শান্তি মিলবে ভেবে মাঝে মাঝেই হয়রান হতে হয়। সুস্থ থাকতে চাইলে পানি, শরবত, জুস খেতেই থাকুন। তবে জুসের বেলায় কেনা জুস পরিহার করাই ভালো। তাতে ল...

স্পেশাল ককটেল লাচ্ছি

এই গরমে বাইরে থেকে এসে যদি একগ্লাস ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা পানীয় পান করা যায়, তবে শরীর ও মন দুই ই হয়ে উঠে তরতাজা। তাই আজ আমি আপনাদের বলব একটি ভিন্ন স্বাদের লাচ্ছ...

পেঁপের মিল্কশেক

পেঁপে খুবই পুষ্টিকর একটি ফল। পেঁপের মিল্কশেক সুস্বাদু একটি পানীয়। বিশেষ করে ছোটদের খুবই প্রিয় এই পেঁপের মিল্কশেক। উপকরণ: পাকা পেঁপের টুকরা, আমের টুকরা, দুধ, আইসক্রিম ও চিনি। প্রণালী: ব্লেন্ডার এ একে একে পরিমানমতো পাঁকা পেপের টুকরা, আমের টুকরা, চিনি, আইসক্রিম ও ঠান্ডা দুধ দিন।ভালোভাবে ব্লেন্ড করুন। এবার গ্লাসে ঢেলে এক স্কুব আইসক্রিম দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার পেঁপের মিল্কশেক।

বোরহানি

উপকরনঃ দই – পাঁচ কেজি, সরিষা গুড়া – টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ বাটা – ১/২ চা চামচ, ভাজা জিরার গুড়া – ২ চা চামচ, পুদিনা পাতা – ১ টেবিল চামচ, ধনে গুড়া – ২ চা চামচ, সাদা গোল মরিচের গুড়া – ২ টেবিল চামচ, লবণ – ২ টেবিল চামচ। প্রনালীঃ প্রথমে দই ফাটিয়ে সমান সমান পানি মিশিয়ে নিন। তারপর পুদিনা পাতা, কাঁচা মরিচ, হলুদ রং এর সরিষা ও লবণ দিয়ে ভাল করে মিক্সড করে নিন। সুস্বাদু এই খাবারটি বিরিয়ানী বা পোলাও এর সঙ্গে পরিবেশন করুন।

জাম্বুরার রস

আমাদের দেশের সকল শ্রেনীর মানুষের পরিচিত ও প্রিয় ফল এই জাম্বুরা। ভিটামিন সি সম্বৃদ্ধ এই ফলটি পুষ্টিতে ভরপুর। উপকরণ: জাম্বুরা, বিট-লবন, কাঁচামরিচ ও চিনি। প্রণালী: একটি জাম্বুরা ভালোভাবে ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে একটি পাত্রে রাখুন। কাঁচামরিচ কুচি করে রাখুন। ব্লেন্ডার এ খোসা ছাড়ানো জামবুরা একটু একটু করে দিয়ে ব্লেন্ড করুন। ব্লেন্ড করা হয়ে গেলে সবটুকু রস একটি জগ এ ঢালুন। এবার জাম্বুরার রস এ কাচামরিচ কুচি, বিট-লবন ও পরিমানমতো চিনি দিয়ে ভালো করে নাড়ুন। বরফ কুচি মিশিয়ে পরিবেশন করুন।

তেঁতুলের শরবত

তেঁতুলের নাম শুনেই জিভে পানি এসে যায়। বিশেষ করে মেয়েদের খুবই প্রিয় এই তেঁতুল এবং খুব সহজেই তৈরী করা যায় তেঁতুলের শরবত। উপকরণ: তেঁতুল, বিট-লবন, চিনি, কাঁচামরিচ কুচি, ধনিয়া পাতা কুচি, শুকনা মরিচের গুড়া ও ঠান্ডা পানি। প্রণালী: প্রথমে তেঁতুল থেকে বিচি আলাদা করে একটি পাত্রে তেতুল গুলে নিন। গোলানো তেঁতুলের সাথে পরিমানমতো ঠান্ডা পানি মিশান। এবার তেঁতুলের সাথে একে একে পরিমানমতো চিনি, বিট-লবন, টেলে রাখা শুকনা মরিচের গুড়া, কাঁচা মরিচ কুচি ও ধনিয়া পাতা কুচি দিন এবং নেড়ে ১০ মিনিট রাখুন। এবার তেঁতুলের মিশ্রনটি অন্য একটি পাত্রে ছাকনি দিয়ে ছে...

জলপাই এর শরবত

জলপাই এর ব্যবহার হয় বিভিন্নভাবে। আচার থেকে শুরু করে অনেকরকম খাবারের উপকরণ হিসেবে ব্যবহৃত হয় পুষ্টিকর এই ফলটি। উপকরণ: জলপাই কুচি - ১ কাপ, পানি - ৫ কাপ, চিনি - ৫ টেবিল চামচ, বিট লবন - আধা চা চামচ, লবন -পরিমানমতো, ধনিয়া পাতা/পুদিনা পাতা ও বরফ কুচি - পরিমানমতো পানি - ৫ কাপ। প্রণালী: জলপাই এর সাথে একে একে সব উপকরণ ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করুন। ব্লেন্ড হয়ে গেলে ছেঁকে নিন। এবার গ্লাসে ঢেলে বরফ কুচি দিয়ে ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করুন জলপাইয়ের শরবত।

বেলের শরবত

বেল আমার খুব পছন্দের একটা ফল। ছোট বেলায় নিজ হাতে বেল গাছ থেকে পেরে শরবত বা ভর্তা বানিয়ে খেতাম। অফিস থেকে বাসায় ফিরে প্রায় সময় আমি বেলের শরবত বানিয়ে খাই এবং পরিবারের সবাইকে খাওয়াই। বেলের শরবত অনেক সুস্বাদু ও স্বাস্থ্যকর একটা খাবার। আপনিও ইচ্ছা করলে খুব সহজেই আপনার পরিবারে প্রশান্তির ছায়া নিমেষেই বয়ে আনতে পারেন বেলের শরবত দিয়ে। উপকরনঃ বেল ১ টি, চিনি আধা কাপ , দই দেড় কাপ , পানি ৫ গ্লাস ও বরফের টুকরা পরিমান মত। প্রনালীঃ প্রথমে বেল ফাটিয়ে বেলের ভেতরে বিচি ও আঁশ বের করে ফেলুন। তারপর ৫ গ্লাস ঠান্ডা পানি দিয়ে ব্লেন্ডারে পেস্ট করে ন...

আঙ্গুর ফলের শরবত

রোযার দিনে ইফতারের জন্য প্রথমে আমরা যে খাবার টা হাতে তুলে নিয় সেটা হল এক গ্লাস ঠান্ডা শরবত। শরবত সারাদিনের কঠোর রৌদ্রের পরিশ্রমের সব গ্লানি ও ক্লান্তি দূর করে শরীরে প্রশান্তি বয়ে নিয়ে আসে। আমরা ইফতার এ যে কোন উপকরনের শরবত খেয়ে থাকি। তার মধ্যে আঙ্গুর ফলের শরবত অনেক টেস্টি ও স্বাস্থ্যকর। উপকরনঃ পরিমান মত মিষ্টি আঙ্গুর, লেবু, গোলাপ জল ও বরফের টুকরা। প্রনালীঃ প্রথমে পরিমান মত আঙ্গুর নিয়ে কুঁচি কুঁচি করে কাটতে হবে। তারপর সামান্য পানি দিয়ে গরম পানিতে সিদ্ধ করে ছাকনা দিয়ে রস গুলো ছেকে নিন। আঙ্গুর ফলের রসের সঙ্গে পরিমান মত লেবুর র...

তেঁতুলের শরবত

তেঁতুলের নাম শুনেই জিভে পানি এসে যায়। বিশেষ করে মেয়েদের খুবই প্রিয় এই তেঁতুল এবং খুব সহজেই তৈরী করা যায় তেঁতুলের শরবত। উপকরণ: তেঁতুল, বিট-লবন, চিনি, কাচামরিচ কুচি, ধনিয়া পাতা কুচি, শুকনা মরিচের গুড়া ও ঠান্ডা পানি। প্রণালী: প্রথমে তেঁতুল থেকে বিচি আলাদা করে একটি পাত্রে তেতুল গুলে নিন। গোলানো তেঁতুলের সাথে পরিমানমতো ঠান্ডা পানি মিশান। এবার তেঁতুলের সাথে একে একে পরিমানমতো চিনি, বিট-লবন, টেলে রাখা শুকনা মরিচের গুড়া, কাঁচা মরিচ কুচি ও ধনিয়া পাতা কুচি দিন এবং নেড়ে ১০ মিনিট রাখুন। এবার তেঁতুলের মিশ্রনটি অন্য একটি পাত্রে ছাকনি দিয়ে ছেক...